The Message of CEO

 

বাণী 

পরম করুণাময় আল্লাহর নামে।

মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব। মেধামনন ও প্রজ্ঞার মাপকাঠি। মহান আল্লাহ তাআলা মানবের এ গুণগুলো শিশুকালে সুপ্ত অবস্থায় রাখেন। পরবর্তীতে অনুকূল পরিবেশাই তার সহজাত প্রবৃত্তি তথা প্রতিভাকে প্রস্ফুটিত ও জাগ্রত করে তোলেন। সৃষ্টির আদিকাল থেকেই মানব মনের চিরায়ত বাসনা ‌আপন জ্ঞানভান্ডারকে সমৃদ্ধ করা। এ ঐকান্তিক বাসনাই সুসংবদ্ধরূপ পরিগ্রহ করে শিক্ষা নামে অভিহিত হয়েছে। 

আধুনিক কালে শিক্ষা ছাড়া ব্যক্তিক, সামাজিক ও সামষ্টিক জীবন কল্পনাতীত। মূলত মাতৃগর্ভ থেকে মৃত্যু পর্যন্ত শিক্ষা প্রক্রিয়া নিরবচ্ছিন্নভাবে চলতে থাকে। তবে আনুষ্ঠানিক শিক্ষার অঙ্কূরোধগম হয় শিশুকাল থেকেই।

মানুষের সত্যিকার পরিচয় তার জ্ঞান ও চরিত্রের মাধ্যমে ফুটে উঠে।  আর তার জ্ঞানচর্চা ও চরিত্র গঠন প্রক্রিয়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভূমিকাই মুখ্য। বরং মানুষের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের ক্ষেত্রে আসলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোন বিকল্প নেই। আর এ ক্ষেত্রে সবার জন্যই স্কুল জীবন অতীব গুরুত্বপূর্ণ ।  মনোবিজ্ঞানও এটা সর্মথন করে। স্কুল জীবনের শিক্ষা, সংস্কৃতি, পরিবেশ, অবস্থান ইত্যাদি আমাদের পরবর্তী জীবনকে ভীষণভাবে প্রভাবিত করে। জীবনের বিভিন্ন চড়াই-উরাই পার হয়ে এবং ঘাত-প্রতিঘাত সহ্য করে আজ যারা জাতির সামনে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পেরেছে তারা সবাই দৃঢ়তার সাথে সাক্ষ্য দিবে যে, সেদিন স্কুল জীবনে একটা সুষ্ঠ, সুন্দর ও সুবিন্যস্ত পরিবেশ পাওয়ার কারণেই সেটা সম্ভব হয়েছে। বিশেষ করে মান-সম্পন্ন মহানুভব কিছু শিক্ষক এবং প্রতিনিয়ত তাদের ত্যাগ ও পরিশ্রম। 

একজন শিক্ষানুরাগী হিসেবে একটি আদর্শ শিক্ষালয় বা মানুষ গড়ার কারখানা প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন আমি দীর্ঘদিন ধরে অন্তরে লালন করে এসেছি। আর এরই ধারাবাহিকতায় নরিসংহপুর, আশুলিয়ায় লাইসিয়াম মডেল স্কুল এন্ড কলেজএর শুভ সুচনা হয়েছে। এ জন্য মহান আল্লাহর দরবারে হাজারো লাখো শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি। আমাদের এ শিক্ষায়তন গৌরবময় সাফল্য অর্জন করুক এবং দীপ্তময় হোক এ প্রার্থনাই করছি।
সর্বশেষে আমি লাইসিয়াম মডেল স্কুল এন্ড কলেজ”-এর সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তাবৃন্দ ও অভিভাবকগণকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই।  আমি আশা করিসংশ্লিষ্ট সকলের সার্বিক সহযোগিতায় আমরা কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো- ইনশাআল্লাহ।  ধন্যবাদ।

এম এ কারিম মিলন

সিইও

লাইসিয়াম মডেল স্কুল এন্ড কলেজ